ফিদা মুভির একটি পরিপূর্ণ রিভিউ। 

নমস্কার বন্ধুরা আমি সৌরিন। আজকে আপনাদের কাছে নিয়ে হাজির হয়েছি ফিদা মুভিটি নিয়ে। এই সিনেমাটি ডিসি ইউ মানে ডিটেকটিভ কমিকস এক্সটেন্ডেড ইউনিভার্স এর 7 নম্বর সিনেমা। এর আগের সিনেমাটি মানে একুয়ামেন। সেটা আমি   এক্সপ্লেন করে দিয়েছি। আপনারা যদি এখনো অব্দি এর আগের  গুলো না দেখে থাকেন তাহলে, পরের পোস্টে   দেখে নিতে পারেন তো আর সময় নষ্ট না করে এক্সপ্লেনেশন শুরু করা যাক। এই সিনেমাটি 1974 সালের নিউ ইয়র্ক থেকে শুরু হয়। সেখানে আমাদের দেখানো হয় সীমানা ফ্যামিলিকে আর সেইখানে মিস্টার সীমানা তার দুটো ছোট বাচ্চাকে নিয়ে কোথাও যাচ্ছিল। তার বড় ছেলের নাম ছিল পিটার। আর ছোট ছেলের নাম ছিল ,তাদের কাছে একটা ছোট খেলনা ছিল আর সেইখানে কিছু ম্যাজিকাল নাম্বার চাস তো শেষ এই বলটা কে নিয়ে খেলছিল কিন্তু তখনই তার বড় ভাই পিটার তার থেকে সেই পল্টি ছিনিয়ে নেয় আর সেই কারণেই তখন সে কাঁদতে থাকে কিন্তু তখনই তার বাবা তাকে একটা কথা বলে সেই বলে যে কখনো কোনদিন কাঁদতে নেই.

 আরো দেখুন।
বাজি (2021 ফিল্ম) ২০২১ বাংলা ফুল মুভি।

তুমি যেটার যোগ্য সব সময় সেটাকে ছিনিয়ে নিতে শেখো তুমি নিজেকে এমন তৈরি করো যাতে তুমি যেটা চাইবে সেই তাকেই তুমি নিজের করে ফেলতে পারো আর এইটা শুনে পিঠে তার সেই খেলাটি ফেরৎ দিয়ে দেয় আর যখন তার সেই খেলনাটা দিকে তাকায় তখন সেখানে সেই কিছু কর্ডিনেট দেখতে পারে আর তারপরে সে নিজেকে সেই গাড়িতে একা খুঁজে পায় সে তার বাবা এবং বড় ভাইকে কোথাওই দেখতে পায় না আর গাড়িটি একটি শুনশান এলাকায় চলে যায় এবং সেই জায়গাটির নাম ছিল ম্যাজিকাল টেম্পল আর তখনই তার সামনে একটা বয়স্ক জাদুঘর আসে যার নাম সে যেন সে বলে যে আমি এই মন্দিরটা কে হাজার বছর ধরে রক্ষা করছি আমার কাজ হচ্ছে এই পৃথিবীর উপরে আসা সমস্ত বিপদকে আটকানো কিন্তু আমার এখন অনেক বয়স হয়ে গেছে আর সেই কারণেই আমি এমন একটা মানুষের সন্ধানে আছি যার মন ভীষণ পরিষ্কার হবে আর তাকেই আমি এই কাজটি ট্রান্সফার করবো কিন্তু তার আগে আমি তার একটা পরীক্ষা নিয়ে দেখতে চাই এর পর একটা একটার চোখের সামনে একটি জাদুই বল.

আরো দেখুন।
ফির ২০২১ বাংলা ফুল মুভি। 

 

দেখতে পায় তখনই সেই বলটা দিকে আকর্ষিত হয়ে যেতে থাকে ছিল কিন্তু তার কানে সাতখানা বাজে জিনিস চেচাতে শুরু করে যেগুলো ছিল লাস্ট ডিউটি গ্রিট সিল্যাঁৎ এনবিআর প্রাইড তারা তাকে ডিস্ট্রিক্ট করার চেষ্টা করে তারা বলে যে তুমি আমাদেরকে বেছে নাও ওই বয়স্ক লোকটা কে নয় আর আমরা তোমাকে সেই সব কিছুই দেব যেগুলো তুমি সারা জীবন পেতে চাও সে তাদের দিকে আকর্ষিত হয়ে সেখানে যেতে শুরু করে কিন্তু তখনই সেই যান সেখানে চলে আসে আর তার সেই স্বপ্নটা ভেঙে যায় সে তখনই বলে যে তোমার মন পরিষ্কার নয় কারণ তোমার মন যদি পরিষ্কার হতো তাহলে তুমি তাদের দিকে আকর্ষিত হতে না আর সেই কারণেই তুমি যোগ্য নয় আমার শক্তিগুলো পাওয়ার জন্য আর সেই কারণেই এখন আমি তোমাকে তোমার পৃথিবীতে ফেরত পাঠাচ্ছি আর্থ এটিএস মানে এটা আবার সেইখানেই পৌঁছে যায় যেখানে সে তার বাবা এবং ভাইয়ের সাথে গাড়িতে বসে ছিল সে সেখানে তার বলটিকে ঢুকতে থাকে আর বলে যে আমি এই শক্তিগুলো.

আরো দেখুন।
একান্নবর্তী ২০২১ বাংলা ফুল মুভি।

 

চাই আর আমি এর যোগ্য আর তাহারেই ব্যবহার দেখে তার বাবা সেই গাড়িটি কন্ট্রোল করতে পারে না আর তখনই তাদের বাজে একটা অ্যাক্সিডেন্ট হয় আর মিস্টার সীমানার এক্সিডেন্টে আবার চলে যায় এবং সেই হ্যান্ডিক্যাপ হয়ে যায় পেটের বড় ভাই পেটের বলে যে আজকে এই ঘটনাটা তোমার জন্যই ঘটলো তুমি যদি নিজেকে সামলে রাখতে তাহলে আজকে এত বড় দুর্ঘটনা ঘটতো না এরপরে গল্প শিক্ষায় প্রেজেন্ট টাইমে যেখানে আমাদেরকে ফিলাডেলফিয়া দেখানো হয় আর সেইখানে বিলিভার নামের একটা ছেলে থাকে সে এখন সেই শহরে একাই থাকে সে এখনো ভাবে যে তার পরিবারে তার মা বেঁচে আছে যখন ছোট ছিল তখন একটা মেলায় এসে খেলা খেলছিল আর তার মাকে সে বলে যে আমার একটা সিংহ চাই কিন্তু তার মা তাকে বলে যে আমি তোমাকে সিংহ এনে দিতে পারব কিনা জানিনা কিন্তু আমি তোমাকে ভালো কিছু একটা নিশ্চয়ই এনে দেবো আরে সাথেই তার মা একটি ছোট গিফট যেতে এবং সেইটা একটা কম্পাস ছিল তখনই বলে যে আমি তোর সিংহ চেয়েছিলাম তখনই বলে এইটা সিংহ.


 

অনেক ভালো একটা গিফট এইটার মাধ্যমে তুমি তোমার হারিয়ে যাওয়া রাস্তা কেউ খুঁজে পেতে পারো আর এইটা বলেই তারা সেখান থেকে বেরিয়ে যায় মিলি বলে যে আমি আমার মায়ের গিফট কখনো হারাবো না এর পরে সেখানে অনেক ভিড় চলে আসে আর বিলি সেইকম পাঁচটি মাটিতে পড়ে যায় সেই টাকে খুঁজতে খুঁজতে একটু আলাদা হয়ে যায় আর সে যখন সেই টাকে খুঁজে পেয়ে যায় ততক্ষণে অনেক তাই দেরি হয়ে গেছিল তার মা তার থেকে অনেকটা দূরে চলে গেছিল আর সেই কারণেই এখন তার কাছে আর কোন রাস্তা বেঁচে ছিল না সে পুলিশের কাছে গিয়ে সাহায্য চায় আর সেই পুলিশের লোকেরা তার মাকে খুঁজতে শুরু করে কিন্তু তার মাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি এর পরেই তারা সবাই মিলে একটি অনাথ আশ্রম এ দিয়ে দেয় সেই পুলিশের গাড়ি থেকে কিছু ইনফরমেশন বার করে যে রয়েছেন নামের কতগুলো মহিলা এই শহরে থাকে আর তারপরে সে একটি মহিলার অ্যাড্রেস পায় এবং সে তার বাড়িতে চলে যায় আর ডোর বেল বাজিয়ে বলে যে আমি আপনার ছেলে এবং এইখানে আমি ফেরত এসে গেছি কিন্তু তখনই সেই ঘরের ভেতর থেকে একটি কাল.


 

মহিলা বেরিয়ে আসে আর বলে যে আমাকে দেখে কোন অ্যাঙ্গেল থেকে তোমার মা মনে হচ্ছে এইটা দেখে সে খুবই দুঃখিত হয়ে পড়ে আর আবার তার অনাথ আশ্রম এ ফিরে আসে আর তখনই সেই অনাথ আশ্রম এর হেড বলে যে বাইরে একটা পরিবার আছে এবং তারা তোমাকে দত্তক নিতে চায় কিন্তু তোমার রেকোর্ড একেবারেই ভাল না এর আগেও তুমি তিনটে বড় বড় পরিবার থেকে পালিয়ে এসেছে কিন্তু এই পরিবারটা তোমাকে একটা সুযোগ দিতে চাই তুমি কি তাদের সঙ্গে যাবে আর অবশেষে বিলি হ্যাঁ বলে এবং সেই পরিবারের সাথে তাদের বাড়ি যায় সেখানে যাবার পরে জানতে পারি যে তারাও এক সময় ওনার ছিল আর সেইখানে আরো পাঁচজন ছিল যাদের নাম ছিল ডান্ডা মারি ইউজিন পেট্রোল এবং ফ্রী ডিভিডি আসলে হ্যান্ডিক্যাপ ছিল তার একটা পা ছিলনা কিন্তু সে সুপারহিরোদের খুব পছন্দ করত 


  


 আলমারিতে একটা ব্যাগ ছিল আর তার সাথে সাথে তার কাছে সুপারম্যান এর একটা গুলি ও ছিল যেটা তার সঙ্গে ধাক্কা লেগে চ্যাপ্টা হয়ে গেছিল সেই সব কথা বলে.

বিলি তার কথায় একেবারেই ইন্টারেস্টেড ছিলনা। এরপরেই তাদেরকে খেতে ডাকা হয়।  আর সেই পরিবারের হেড। মানে ভিক্টর সবার হাত সামনে নিয়ে আসে এবং ভগবান কি তারা ধন্যবাদ জানায়। সে ধন্যবাদ জানাই এই পরিবারের এই খাবারের এবং এই দিনটার জন্য। যেটা ভগবান আজকে তাদেরকে দিয়েছে কিন্তু বিলি তার হাতটি এগোয় না। কারণ সে এইটা মনে করে যে এই পরিবারটা তার নয় আর তার মা এখনো বেঁচে রয়েছে এবং একদিন সে তাকে ঠিক খুঁজে বের করবে। এর পরে তারা স্কুলে যায় যেখানে সবাই অন্য অন্য ক্লাসে ছিল। আর সেইখান থেকেই শিফট হয়ে প্রেজেন্ট টাইম দিবানা ফ্যামিলিতে। আর এখন সে ডক্টর সীমানা হয়ে গেছে আর সেই এখন তাদের উপরই রিচার্জ করছে। যারা সেই ইলিউশন গুলো আর সেই বয়স্ক জাদুঘর সাথে দেখা করেছে। এখন অব্দি 5613 কেমন রয়েছে যাদেরকে সেই বয়স্ক সে যেন তার শক্তি ট্রান্সফার করার কথা বলেছে। কিন্তু আজ অব্দি সেই শক্তিগুলো কেউ পায়নি কারণ। কারণ অতটা সরল নয় তখনই তার একটি।

 

মহিলার সাথে আলাপ হয় সেই বলে ,যে আমি সেই জায়গাটায় যখন গেছিলাম সেইখানে আমি কোন চাঁদ দেখতে পাইনি। সেই জায়গাটা একটা পাহাড়ের মতন ছিল। সেইখানে শুধু একটা বয়স্ক জাদুঘর ছিল। আর সে আমায় জিজ্ঞাসা করেছিলো, যে তোমার মনকে পরিস্কার নাকি তোমার মনে লালসা রয়েছে। আর আমাকে চেক করার জন্য সে একটি বলে সামনে আমাকে দাঁড় করায়। কিন্তু জানিনা কেন আমি তার সেই পরীক্ষাটি পাস করতে পারিনা? আর তারপরে সেই আমাকে আবার এই পৃথিবীতে ফেরত পাঠিয়ে দেয়, আর ডক্টর সীমানা যখন সেই গুলো নিয়ে রিসার্চ করছিল তখন সে একটা ঘোরের ভেতর থেকে সেই কর্ডিনেট গুলোই খুঁজে পায়। যদি সন্ধান পেয়ে যুক্তি করে যাচ্ছে ,আর তখনই সে বুঝতে পারে যে ,সেইখানে মোর 7:00 কোঅর্ডিনেট রয়েছে। আর সেইগুলোকে যদি রিয়ারেন্জ করে আবার কোডিং করা যায় তাহলে সেইখানকার দরজা নিশ্চয়ই খোলা যাবে। তার অ্যাসিস্ট্যান্ট তার ওপরে হাসতে থাকে। আর বলে যে এই সবকিছু করা বৃথা। আর তার পরে শেষেই দরজাটির উপরে হাত রাখে এবং সে যখন সেখানে হাত রাখে সেই দরজাটি পরিণত হয়ে যায়।


 

পরিষেবা না সে সন্দেহটা বিশ্বাসে পরিণত হয় আর সেই বুঝে যায় যে সেই জায়গাটি রয়েছে আর সে সেখানে প্রবেশ করার পরে পৌঁছে যায় সেই জায়গাটিতেই যেখানে শেষ করেছিল সেই তখন তাকে বলে যে তুমি কি আমায় চিনতে পারছো আমি সেই ছেলেটি যে হাজার 974 সালে তোমার কাছে এসেছিলাম কিন্তু তুমি আমাকে একসেপ্ট করোনি তুমি আমায় বলেছিলে যে আমার মন নাকি পরিষ্কার নয় আর সেই কারণেই আমাকে তুমি আবার ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছিলে সেটাও বলে যে দেখো আজকে আমি তোমার সামনে দাঁড়িয়ে আছি কিন্তু আজকে আমি তোমার শক্তিগুলো নিতে আসিনি আমি সেই বাজে শক্তিগুলো নিতে এসেছি যেগুলো আমাকে আকর্ষিত করেছিল আর তারপরে শেষেই বল টার দিকে যায় এবং সেই বলটিকে যেইভাবে ঘিরে রাখা ছিল সেই সুরক্ষিত করা হয় আস্তে আস্তে সরে যায় আর তার সাথে সাথে সেই শটটা পাপী শক্তি এখন মুক্ত হয়ে যায় আর তারপরে সীমানা সেজানকে সেইখানেই দেখে সেই পাপী শক্তিগুলোকে নিয়ে বেরিয়ে পড়ে আর তখনই শাজাম বলে যে আমার কাছে আর কোন উপায়.


 

সীতার সেই জাদুই শক্তিগুলো ব্যবহার করে আর বলে আমার সামনে সেই ব্যক্তি টা কে নিয়ে আসুক জার্মন একেবারে পরিষ্কার আর তারপরই সিন্স হয় আর আমরা দেখতে পারি স্কুল ছুটি হয়ে গেছে আর সেইখানে কিছু উঁচু ক্লাসের ছেলেরা ফ্রেন্ড কে খুব জ্বালা ছিল কিন্তু তখনই সেখানে বিলি পৌঁছে যায় কারণ ফ্রেডি একা তাদের সঙ্গে লড়াই করতে পারবে না সেইখানে বিলি তাদেরকে খুব মারধর করে আর সেই কারণেই তারা খুবই রেগে যায় আর তার পরেই তারা তাদের পিছু নেয় বিলি দৌড়াতে দৌড়াতে সেখান থেকে একটি ট্রেন স্টেশনে এসে পৌঁছায় আর তারপরে সে একটি ট্রেনে উঠে পড়ে সেই কারণে সেই ছেলেগুলোর থেকে বেঁচে যায় কিন্তু তার সাথে সেই ঘটনাটি ঘটতে শুরু হয় যেটা একসময় থ্রিএস এর সাথে হয়েছিল সেই ট্রেনের গতি আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে এবং সেই জায়গাটি ঠান্ডা হয়ে যায় তখনি তার চোখের সামনে সেই কর্ডিনেট গুলি দেখে আর সেইটা একমাত্র তখনই কেউ দেখতে পারবে যখন সেই বয়স্ক সেজাম কাউকে তার নিজের কাছে ডাকে আর তারপরেই ভিলিসি জাদুই টেম্পেল টায় পৌছে যায় সেটাকে বয়স কত.


Post a Comment

Previous Post Next Post